জিডিপির তুলনায় মাথাপিছু ঋণের চাপ বাড়ছে

বিজনেসটাইমস২৪.কম
ডেস্ক, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৩:

images (1)বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান উন্নয়ন অন্বেষণের এক অর্থনৈতিক পর্যালোচনায় বলা হয়েছে, বাংলাদেশে মাথাপিছু ঋণের বোঝা মাথাপিছু জিডিপি প্রবৃদ্ধির চেয়ে অধিক হারে বাড়ছে। ফলে অর্থনীতিতে ঋণের চাপ বাড়ছে। ২০১২-১৩ অর্থবছরে মাথাপিছু ঋণ ১৩ দশমিক ৭ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৩৮৯ টাকা। যা ২০১১-১২ অর্থবছরে ছিল ২ হাজার ৯৮২ টাকা।

গতকাল শনিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৩-১৪ অর্থবছরে সরকার রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যর্থ হতে পারে। কারণ ২০১২-১৩ অর্থবছরেই সরকার রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সফল হয়নি। তার উপর বর্তমান বছরে পূর্ববর্তী বছরের চেয়ে অতিরিক্ত লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হয়েছে। এদিকে চলতি অর্থবছরে সামাজিক ও ভৌত অবকাঠামো খাতে বাজেটে তুলনামূলক কম বরাদ্দ পেয়েছে। ফলে উন্নয়ন ও অনুন্নয়ন ব্যয় বৃদ্ধির ক্ষেত্রে বিপরীত অবস্থান লক্ষ্য করা গেছে। অনুন্নয়ন ব্যয় গত অর্থবছরের ১৪ দশমিক ৭ শতাংশ থেকে বেড়ে চলতি অর্থবছরে দাঁড়িয়েছে ২১ দশমিক ৫ শতাংশে। অথচ উন্নয়ন ব্যয় গত অর্থবছরের ৪২ শতাংশ থেকে কমে ২০১৩-১৪ অর্থবছরে দাঁড়িয়েছে ২৫ দশমিক ১ শতাংশ। একইভাবে কৃষি এবং গ্রামীণ উন্নয়ন উপখাতগুলোতে গত অর্থবছরের তুলনায় চলতি অর্থবছরে বাজেট কমেছে ২ দশমিক ৩৪ শতাংশীয় পয়েন্ট। সুতরাং অর্থনীতির এসব গুরুত্বপূর্ণ খাত অর্থনীতিতে কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং গুণক প্রভাব কোনটাই ফেলতে পারছে না।

গবেষণা প্রতিষ্ঠানটি জ্বালানি ও বিদ্যুত্ খাতে ব্যয়ের ক্ষেত্রে প্রধানত পাঁচ ধরনের প্রধান সমস্যা চিহ্নিত করেছে। প্রথমত, জ্বালানি ও বিদ্যুত্ খাতে অধিক ব্যয়ের ফলে সামাজিক ও ভৌত অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগ বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। দ্বিতীয়ত, ভর্তুকি ব্যয় অধিক হারে বাড়ছে। তৃতীয়ত, বিদ্যুতের উত্পাদন ও চাহিদার পার্থক্য কমছে না। চতুর্থত, ভর্তুকি বাড়লেও বিদ্যুতের দাম বাড়ছে। পঞ্চমত, রেন্টাল ও কুইক রেন্টালে বড় অঙ্কের ভর্তুকি দেয়া হলেও প্রত্যাশা অনুযায়ী বিদ্যুত্ উত্পাদন বাড়েনি। প্রতিষ্ঠানটি মনে করে যে, ঘাটতি মেটানোর জন্য সরকার আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) এবং এর সাথে সহমত পোষণকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর নীতিনির্ধারণী উপদেশ অনুসরণ করছে যা অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে। যদি ঘাটতির সঠিক ব্যবহারের মাধ্যমে উচ্চ প্রবৃদ্ধির দিকে অগ্রসর হওয়া যায় তবে সরকারি ব্যয়ের আকার ও বাজেট ঘাটতি তেমন কোন উদ্বেগের বিষয় নয় বলে উন্নয়ন অন্বেষণ মনে করে।

মন্তব্য প্রদান করুন

*


*