‘ডায়াবেটিস পুরোপুরি সারবে’

বিজনেসটাইমস২৪.কম
ডেস্ক, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৪:

wwইঁদুরের ওপর সফল পরীক্ষা চালানোর পর ডায়াবেটিস থেকে পুরোপুরি সেরে উঠার চিকিৎসা বের করার ক্ষেত্রে  যুক্তরাষ্ট্রের একদল বিজ্ঞানী অনেক দূর এগিয়েছেন বলে গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

টাইপ ১ ডায়াবেটিসে আক্রান্তদের শরীরে বিশেষ পদ্ধতিতে কোষ প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে এ রোগ পুরোপুরি সারিয়ে তোলা যাবে বলে আশা করছেন বিজ্ঞানীরা।

সাধারণত শৈশব কিংবা যৌবনের প্রথমভাগে মানুষের এই ধরনের ডায়াবেটিস দেখা দেয়। তারপর জীবনের বাকিটা সময় ইনসুলিন গ্রহণের মধ্য দিয়ে তাদের চলতে হয়।

গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার একদল বিজ্ঞানী গবেষণাগারে  ইঁদুরের দেহে  স্টেম সেল প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে গ্লুকোজ নিয়ন্ত্রণে সফলতা পেয়েছেন। এ পদ্ধতিতে মানুষের ক্ষেত্রে  টাইপ১ ডায়াবেটিস  চিকিৎসায় সফলতা আনা সম্ভব বলে তারা মনে করছেন।

গবেষণার বিস্তারিত তুলে ধরে প্রতিবেদনে বলা হয়,  প্রথমে ইঁদুরের চামড়া থেকে কোষ সংগ্রহ করা হয়, যাকে ‘ফাইব্রোব্লাস্ট’ বলা হয়। এরপর এসব কোষের জিনবিন্যাসে পরিবর্তন ঘটিয়ে এন্ডোডার্ম কোষে রূপান্তর করা হয়। সেগুলোর আরো রূপান্তর ঘটিয়ে প্রাথমিক অগ্ন্যাশয় কোষের  মত করা হয়, যাকে পিপিএলসি বলা হয়।  এই পিপিএলসি ইনসুলিন নিঃসরণকারী বিটা সেলে পরিণত হয় কি না সে পরীক্ষা করে সফল হন বিজ্ঞানীরা।

এরপর রক্তে উচ্চ মাত্রার গ্লুকোজ সম্পন্ন ইঁদুরের দেহে পিপিএলসি প্রবেশ করানো হয়। এর সপ্তাহখানেক পরে ওই ইঁদুরের রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ উল্লেখযোগ্য হারে কমে আসে।
url
গবেষক দলের সদস্য কে লি বলেন,  “স্টেম সেল প্রতিস্থাপনের এক সপ্তাহের মধ্যেই ইঁদুরগুলোর ‘সুগার লেভেল’ কমতে থাকে। ধীরে ধীরে সাধারণ মাত্রায় চলে আসে।  তখন আমরা প্রতিস্থাপিত কোষটি বের করে নিয়ে আসি। এরপর আবারো দ্রুত গ্লুকোজ বাড়তে থাকে।”

কে লি বলেন, পিপিএলসি প্রতিস্থাপনের আট সপ্তাহের মাথায় এগুলো পুরোপুরি ইনসুলিন নিঃসরণকারী বিটা সেলের মতো কাজ করতে থাকে।

এভাবেই মানুষের ক্ষেত্রেও ডায়াবেটিস নিরাময় সম্ভব বলে তারা মনে করছেন।

মন্তব্য প্রদান করুন

*


*