গ্রাম পর্যায়ে হাউজিং সুবিধা পৌঁছে দিতে চাই: গণপূর্তমন্ত্রী

বিজনেসটাইমস২৪.কম
, ১১ মে, ২০১৪:
imagesগৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেন বলেছেন, হাউজিং সেক্টরকে আমরা গ্রাম পর্যায়ে পৌঁছে দিতে চাই। সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা দিয়ে গ্রামে হাউজিং প্রকল্প চালু হলে মানুষ শহরমুখি কম হবে।

আজ রোববার দুপুরে সচিবালয়ের গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে রিয়েল এস্টেট এ্যান্ড হাউজিং এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (রিহ্যাব)-এর নেতৃবৃন্দের সঙ্গে বৈঠকে এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, আবাসন ব্যবসায় এখন মন্দা চলছে। এই অবস্থা কাটিয়ে উঠতে প্রধানমন্ত্রী ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে প্রণোদনা প্যাকেজ চালু করা দরকার। বৈঠকে সরকারের বিভিন্ন প্রকল্প নির্মাণে রিহ্যাবকে সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন মন্ত্রী।

রিহ্যাব সভাপতি মোকাররম হোসেন বলেন, ঢাকা শহরের উত্তরা ও কামরাঙ্গীরচরে মালয়েশীয় সরকারের সাহায্যে ২২ হাজার ফ্ল্যাট নির্মাণ না করিয়ে তা রিহ্যাবের মাধ্যমে করানো সম্ভব। কারণ দেশি প্রতিষ্ঠান দিয়ে কাজ করালে বিষয়টি আরো ভালো হবে। রিহ্যাব বর্তমানে দেশেই আন্তর্জাতিকমানের ভবন নির্মাণ করছে। এই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে মন্ত্রী বলেন, সরকারি অনেক জমি রয়েছে যা বেহাত হয়ে যাচ্ছে। দেশে এখনো অনেক জমি রয়েছে যেখানে রিহ্যাব জনসাধারণের জন্য অ্যাপার্টমেন্ট তৈরি করতে পারবে। এ জন্য তাদের দরপত্রে অংশগ্রহণ করতে হবে। তিনি  বলেন,  পূর্বাচলে ১০ হাজার অ্যাপার্টমেন্ট  তৈরি করা হবে। এখানে কাজ করার জন্য রিহ্যাবকে বলা হয়েছে। এ সময় সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিবকেও বিষয়টি দেখার নির্দেশ দেন তিনি।

বৈঠকে রিহ্যাব নেতারা মন্ত্রীকে জানান, তাদের বিভিন্ন প্রকল্প প্ল্যান পাসের জন্য রাজউকসহ বিভিন্ন জায়গায় অনেক সময় লাগে। এজন্য তারা ওয়ান স্টপ সার্ভিস চালু করা, অবিক্রিত প্রায় ২২ হাজার ফ্ল্যাট বিক্রির জন্য সহজ শর্তে অর্থ মন্ত্রণালয়ের একটি প্যাকেজ ঘোষণা করা, ফ্ল্যাটের নিবন্ধন ফি সাড়ে ১১ শতাংশ থেকে কমিয়ে সাড়ে ছয় ভাগে নামিয়ে আনারও দাবি জানান তারা।

বৈঠকে রিহ্যাবের সভাপতি মোকাররম হোসেন খান, রিহ্যাবের সহ সভাপতি লিয়াকত আলী ভূইয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য প্রদান করুন

*


*