পত্রিকা বাতিলে ডিসিদের প্রস্তাব অজানা তথ্যমন্ত্রীর

বিজনেসটাইমস২৪.কম
ঢাকা, ০২ জুলাই, ২০১৪:

enu“পত্রিকা বাতিলের ক্ষমতা চেয়ে জেলা প্রশাসকদের প্রস্তাব আমার কাছে আসে নাই” বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। বুধবার সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, জাতীয় সমপ্রচার নীতিমালা বেসরকারি কমিটি যেভাবে দিয়েছে তা আমরা তথ্য মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইডে দিয়েছি, সভা সেমিনার ও জনগণের মতামত নেয়া হয়েছে।

ইনু বলেন, সকলের মতামত নিয়ে এটি করা হয়েছে। মতামত নেয়ার পরে তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠানো হয়েছে। জাতীয় সমপ্রচার নীতিমালা অনুমোদনের জন্য তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠানো হয়েছে। এটি মন্ত্রিসভায় অনুমোদন হলেই কাজ শুরু করা হবে। নীতিমালার আলোকে কমিশন গঠন করা হবে। জাতীয় সমপ্রচার নীতিমালা বাস্তবায়নের জন্য আইন করা হবে। এ আইন করতে দুই থেকে তিন মাস সময় লাগবে।

তিনি বলেন, কমিশন গঠন হলে পত্র-পত্রিকাগুলো স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারবে।

জাতীয় সমপ্রচার কমিশন কি কি কাজ করবে এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, কমিশন সংবাদপত্রের রেজিস্ট্রেশন, ভালোমন্দ খবর প্রকাশ করলে সঙ্গে সাংবাদিকদের বেতন ভাতা বন্ধ, বা সাংবাদিকরা পত্রিকার মালিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ করলে সেগুলো দুই পক্ষের শুনানি করবে এবং বিষয়টি নিস্পত্তি করবে।

ইনু বলেন, বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে টকশো’তে এমন কিছু বলে যা বিষয় বিবেচনা করে জরিমানা করতে পারে কমিশন।

মন্ত্রী বলেন, অনলাইন নীতিমালা আমাদের মন্ত্রণালয় জমা দিয়েছে বেসরকারি কমিটি। এটা নিয়ে কাজ চলছে। অল্প দিনের মধ্যে এটি অনুমোদন করা হবে।

তিনি বলেন, জাতীয় প্রেস কাউন্সিলকে শক্তিশালী করা হবে। এজন্য কিছু কিছু ধারা উপধারা পরির্বতন করা হবে। মন্ত্রণালয় কাজ করছে এজন্য।

মন্তব্য প্রদান করুন

*


*